জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলে কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

Published: 2018-04-04 22:59:38

জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের ২০১৭ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, এমপি। এসময় উপস্থিত ছিলেন জিওসি ১৭ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়ার কমান্ডার, সিলেট এরিয়া মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান, বিএসপি, এনডিসি, পিএসসি, উপাচার্য, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড সিলেট, সেনাবাহিনীর সিনিয়র অফিসারগণ, বিভাগীয় ও জেলাপর্যায়ের প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগের সিনিয়র অফিসারগণ, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষক, শিক্ষা বোর্ড ও শিক্ষাবিভাগের পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ (জেসিপিএসসি) পিইসিই, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যে অভূতপূর্ভ কৃতিত্ব অর্জন করেছে তা সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য অনুকরণীয় ও অনুসরণীয় হতে পারে। তিনি বলেন এই কৃতিত্ব সম্ভব হয়েছে সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে, মানসম্মত লেখাপড়ার পরিবেশ, প্রতিষ্ঠানের শৃংখলা, সর্বক্ষেত্রে জবাবদিহীতা, প্রশিক্ষিত, দীপ্তিমান জ্ঞানের দিশারী শিক্ষক, উদ্যমী ও কর্মঠ শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের আন্তরিক সহযোগিতায়।

তিনি বলেন, আমি জানতে পেরেছি এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, লেখাপড়ার পাশাপাশি সাহিত্য-সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ, আইসিটি উদ্ভাবনী প্রতিযোগিতা, বিজ্ঞান মেলা, খেলাধুলা ও স্কাউটিং-এ জেলা অঞ্চল ও জাতীয়পর্যায়ে অনন্য কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে চলেছে। দেশের সীমানা ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়েও এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা অবদান রাখছে। তিনি ২০১৭ সালে যেসকল শিক্ষার্থী কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করেছে, তাদের প্রতি উষ্ণ অভিনন্দন জানান।

তিনি বলেন ইতোমধ্যে জেসিপিএসসির শিক্ষার্থীরা কর্মজীবনে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়, বুয়েটসহ বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক, সশস্ত্রবাহিনীর অফিসার, ডাক্তার, প্রকৌশলী, প্রশাসনের কর্মকর্তা হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি জাতির জনক বক্সগবন্ধু শেখ মুজিবু রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় অবদান রেখে চলেছে। তিনি বলেন বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদালাভ করেছে। উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে, বিশ^ায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দেশকে এগিয়ে নিতে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠিত করতে আমাদের প্রয়োজন জ্ঞান, দক্ষতাসম্পন্ন আগামী প্রজন্ম যা জেসিপিএসসির মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গড়ে তোলা সম্ভব।

তিনি বলেন, নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও আমরা প্রতিবছর ১ জানুয়ারি দেশের সকল শিক্ষার্থীর হাতে নতুন পাঠ্যপুস্তক তুলে দিতে সক্ষম হয়েছি। সকলের সহযোগিতায় আজ আমরা প্রশ্নফাঁস রোধ করতে সক্ষম হয়েছি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সকল পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল প্রদান করতে সক্ষম হয়েছি। আপনাদের সহযোগিতায় আমরা এগিয়ে যাবো, উন্নত সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়বোই। তিনি বলেন জেসিপিএসসি-র অগ্রযাত্রায় ও উন্নয়নে আমার সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে। তিনি জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষাকার্যক্রম সম্প্রসারণের লক্ষ্যে একটি ৪ (চার) তলাবিশিষ্ট ভবন প্রদানের ঘোষনা দেন, যার নির্মাণকাজ চলতি অর্থবছরেই শুরু হবে।

জিওসি মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান, বিএসপি, এনডিসি, পিএসসি তাঁর বক্তৃতায় সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে পরিচালিত জেসিপিএসসির কৃতিত্বের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তিনি কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী শিক্ষার্থী, তাদের অভিভাবক ও যেসকল শিক্ষকবৃন্দ অবদান রেখেছেন, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

শিক্ষামন্ত্রী রাষ্ট্রীয় কর্মব্যস্ততা সত্ত্বেও জেসিপিএসসির এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও আমাদেরকে অনুপ্রাণিত করায় মাননীয় মন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অধ্যক্ষ, লে. কর্নেল মো. শাখাওয়াত হোসেন, জেসিপিএসসির বিভিন্ন শিক্ষাকার্যক্রম, সাহিত্য-সংস্কৃতি, খেলাধুলা ইত্যাদিতে জেসিপিএসসির কৃতিত্ব তুলে ধরেন। অভ্যাগত অতিথি, সুধীজন, পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, অভিভাবকদের তিনি স্বাগত জানান। অনুষ্ঠানে জেসিপিএসসির শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। প্রধান অতিথি সকল কৃতী শিক্ষার্থীর হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন। অনুষ্ঠানে এসএসসি ১৫২ জন ও এইচএসসি ২৪৬ জন কৃতী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, প্রভাষক ফরিদা ইয়াসমিন, প্রভাষক সাজ্জাদুজ্জামান চৌধুরী, সিনিয়র শিক্ষক মো. এমদাদুল হক সিদ্দিকী ও সহকারী শিক্ষক সিফাত আরা কণা।-বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    জকিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করলো মসজিদের ইমাম!
  •    ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে ‘ধর্ষণ’, আটক ডাক্তারকে জেলে প্রেরণ
  •    ক্রোয়াটদের কাঁদিয়ে ফ্রান্স দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন
  •    কাউন্সিলর প্রার্থী এবি এম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বলের গনসংযোগ
  •    তামাবিল দিয়ে তিন বাংলাদেশীকে ফেরত দিল বিএসএফ
  •    ‘হবিগঞ্জের মতো সিলেটেও বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হবেন’
  •    সিলেট এসেছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক শামীম
  •    ইনসাফ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করতে টেবিল ঘড়ির পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে
  •    জগন্নাথপুরে শাহজাহানকে অপহরনের পর নৃশংসভাবে হত্যা
  •    নগরীতে তীর শিলং খেলার অভিযোগে আটক ৭
  •    নগরীতে যুবলীগ-শিবিরের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া
  •    নগরীর রায়নগরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেপ্তার
  •    সোনারপাড়ায় কাউন্সিলর প্রার্থী স্বপ্নার গণসংযোগ
  •    রায়হুসেন-কলবাখানী এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী রুবেলের গণসংযোগ
  •    এবার বাস প্রতীকে ভোট চেয়ে মাঠে সেলিম পত্নী হেনা
  • সাম্প্রতিক শিক্ষাঙ্গন খবর

  •   সিলেটে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় ছাত্রলীগ কর্মীর উপর হামলা
  •   ভালো ছাত্র-ছাত্রী হওয়ার আগে ভালো মানুষ হতে হবে
  •   গ্রীনহিল স্টেট কলেজের নবীনবরণ সম্পন্ন
  •   ওসমানীনগরে দেড় লক্ষ টাকার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস
  •   উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের মাধ্যমে নবাগত শিক্ষার্থীরা মানবসম্পদে পরিনত হবে
  •   কুড়ার বাজার দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা
  •   কলেজ ছাত্রী রেজমিনের ঘাতকের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন
  •   কোটা সংস্কার : ছাত্রীদের নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা হিরণ মাহমুদ নিপুর বিতর্কিত স্ট্যাটাস
  •   বর্ষা মৌসুমে প্রাথমিক বিদ্যালয় যাওয়া থেকে বঞ্চিত হাওর পাড়ের শিক্ষার্থীরা
  •   অনিশ্চয়তায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বিপাকে শিক্ষার্থীরা
  •   সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে এমইউ ল’অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ইফতার
  •   সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটির শেষ বর্ষের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন
  •   বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক সমিতির ইফতার মাহফিল
  •   দ্বৈত ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ভর্তি বাতিলের জরিমানা প্রত্যাহার দাবি
  •   সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি : স্বত্ত্ব অস্বীকার করে বোরো আমন দেখিয়ে গোপনে জমি নামজারি