সিলেটের বিভিন্ন এলাকার নাম জানান দিচ্ছে বিলুপ্ত দিঘি

Published: 2018-02-11 03:24:07

ছবি : মো. আজমল আলী

নগরীতে পুকুর ও দীঘি কমেছে

সিলেট নগরীতে হারিয়ে যাচ্ছে পুকুর-দিঘি। এক সময়ে নগরীতে শতাধিক পুকুর ও দিঘি থাকলেও তা বর্তমানে সে সংখ্যা নেমে এসেছে শূন্যের কোঠায়। একের পর এক দিঘি-পুকুর ভরাট করে নিশ্চিহ্ন করার কারণে কয়েকটির নাম পর্যন্ত বিলুপ্ত। আর এসব দিঘিরপাড়ে গড়ে ওঠা এলাকার নামগুলোই জানান দিচ্ছে এসব এলাকায় দিঘি ছিল। নগরীর রামেরদিঘিরপাড়, মাছুদিঘিরপাড়, লালদিঘিরপাড়, রামুদিঘিরপাড়, সাগরদিঘিরপাড়, চারাদিঘিরপাড় এলাকায় টিকে থাকলেও দিঘিগুলো আর নেই। পরিবেশবিদদের মতে, সিলেটে এখন যে পুকুর ও দিঘি টিকে আছে, সেগুলো রক্ষা করা জরুরি। অন্যথায় মারাত্মক পানি সংকটে পড়ার আশঙ্কা সিলেটবাসীর।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, সিলেট নগরীর দিঘিগুলোর মধ্যে রামেরদিঘিরপাড় এলাকার দিঘি ভরাট হয়েছে বেশ কয়েক বছর আগে। ঐতিহ্যবাহী এবং শত বছরের পুরনো মাছুদিঘিটিও অস্তিত্ব সংকটে। একই প্রক্রিয়ায় ভরাট হয়ে গেছে, সাগরদিঘিরপাড় এলাকার স্বচ্ছ পানির দিঘিটি। চারাদিঘি, লালদিঘি ছাড়াও দাড়িয়াপাড়া নিম্বার্ক আশ্রমের পেছনের দিঘি ও লন্ডনী রোডের দিঘির অস্তিত্ব নেই বর্তমানে। এছাড়া ময়লা-আবর্জনা ফেলে অর্ধেক বিনষ্টের পর এবার মজুমদার দিঘিটি হজম করার চেষ্টা করা হচ্ছে, যেটি নিয়ে পরিবেশ আইনবিদ সমিতি বেলার একটি মামলা রয়েছে। দাড়িয়াপাড়া এলাকার ভেতরে এক সময় আট থেকে ১০টি পুকুর থাকলেও প্রভাবশালীদের দখল এবং দূষণের কবলে এর অধিকাংশই এখন অস্তিত্ব নেই। সবগুলো ভরাট করা হয়েছে।

নগরীর লোহারপাড়ার বাসিন্দা তারেক আহমদ বলেন, একটা সময় নগরীর দাঁড়িয়াপাড়ায় অন্তত ১০টি পুকুর ছিল। এখন একটি পুকুরের অস্তিত্ব নেই। সবগুলো ভরাট করা হয়েছে।

নগরীর তাঁতীপাড়ার পান্না বলেন, কাস্টম অফিসসংলগ্ন পুকুর ছিল এলাকার অনেকের গোসলের স্থান। দূরদূরান্ত থেকে মানুষ এসে এ পুকুরে গোসল করত। এখন সেই পুকুরের একপাশ ডাস্টবিনে পরিণত হয়ে গেছে। আগে পুকুরের পানি সুন্দর এবং ঝলমল থাকায় গোসল, কাপড় ধোয়াসহ সাংসারিক অনেক কাজ সহজে করা যেত। এখন পানির রঙ কালচে হয়ে গেছে। পুকুরটি সংরক্ষণেরও কোনো উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না।

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা) সিলেটের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট শাহ শাহেদা আখতার জানান, সিলেটের অধিকাংশ দিঘি-পুকুর ভরাট হয়ে গেছে। সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে যেগুলো রয়েছে, সেগুলোর অবস্থাও নাজুক। এগুলো রক্ষা করা খুবই জরুরি। নতুবা মারাত্মক পানি সংকটে পড়বে সিলেটের মানুষ। পুকুর-দিঘি যত ভরাট করা হবে, পানির স্তর ততই নিচে নেমে যাবে; বিশুদ্ধ পানি কম পাওয়া যাবে।

সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, আমরা অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব। এছাড়া পুকুর-দিঘি রক্ষায় আমাদের পরিকল্পনাও রয়েছে।

সূত্র : দিপু সিদ্দিকী, খোলা কাগজ

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    গাড়ি চুরির ঘটনায় রইছ মোল্লার বিরুদ্ধে মামলা, ৪ দিন পর উদ্ধার
  •    জকিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করলো মসজিদের ইমাম!
  •    ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে ‘ধর্ষণ’, আটক ডাক্তারকে জেলে প্রেরণ
  •    ক্রোয়াটদের কাঁদিয়ে ফ্রান্স দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন
  •    কাউন্সিলর প্রার্থী এবি এম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বলের গনসংযোগ
  •    তামাবিল দিয়ে তিন বাংলাদেশীকে ফেরত দিল বিএসএফ
  •    ‘হবিগঞ্জের মতো সিলেটেও বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হবেন’
  •    সিলেট এসেছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক শামীম
  •    ইনসাফ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করতে টেবিল ঘড়ির পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে
  •    জগন্নাথপুরে শাহজাহানকে অপহরনের পর নৃশংসভাবে হত্যা
  •    নগরীতে তীর শিলং খেলার অভিযোগে আটক ৭
  •    নগরীতে যুবলীগ-শিবিরের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া
  •    নগরীর রায়নগরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেপ্তার
  •    সোনারপাড়ায় কাউন্সিলর প্রার্থী স্বপ্নার গণসংযোগ
  •    রায়হুসেন-কলবাখানী এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী রুবেলের গণসংযোগ
  • সাম্প্রতিক পরিবেশ খবর

  •   কোম্পানীগঞ্জে ১৫ টি বোমা মেশিনের স্থাপনা ধ্বংস
  •   ছাতকে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, বাড়ছে দুর্ভোগ
  •   টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে সিলেটের নিম্নাঞ্চলে ফের বন্যার শঙ্কা
  •   ‘প্রশাসন নয়, হুদা ভাইয়ের নির্দেশে সুরমা নদী থেকে মাটি উত্তোলন করি’
  •   পুকুরের কাদা ও পানিতে আটকেছিল মায়া হরিণ
  •   রাজনগরে বানভাসিদের মাথা গোঁজার নতুন সংগ্রাম
  •   বড়লেখার সোনাই নদীর ৬ স্থানে ভাঙন, রাস্তা বিলীন
  •   ফেঞ্চুগঞ্জের দোকানে দোকানে পানি, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত
  •   জকিগঞ্জে কমছে পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ
  •   পাহাড়ি ঢলে সিলেটে ঈদ আনন্দ ম্লান
  •   সুনামগঞ্জ হাওরে বজ্র নিরোধক যন্ত্র স্থাপনের দাবি, ৪ বছরে প্রাণ গেল ৯১
  •   জৈন্তাপুরে নির্বিচারে চলছে পাহাড় কাটা, নিরব প্রশাসন!
  •   দেশের বিভিন্ন জেলায় আরও কালবৈশাখীর আশঙ্কা
  •   কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গনে ভিটেহীন শত পরিবার
  •   বাইক্কাবিলে দেখা মিলছে ৩৮ প্রজাতির ৫ হাজার ৪১৮ পাখির