বাইক্কাবিলে দেখা মিলছে ৩৮ প্রজাতির ৫ হাজার ৪১৮ পাখির

Published: 2018-02-14 16:02:29

জেলা প্রতিবেদক : মৌলভীবাজার, নিউজমিরর :: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে হাইল হাওরের সংরক্ষিত মাছের অভয়ারণ্য বাইক্কা বিলে এবারের শীত মৌসুমে আসা ৩৮ প্রজাতির পরিযায়ী পাখির দেখা মিলেছে। ৫ হাজার ৪ শত ১৮টি পাখির মধ্যে সবচেয়ে বেশি এসেছে পাতি তিলিহাঁস। এদের সংখ্যা এক হাজার পাঁচ শত ৮০টি। গত ২৪ থেকে ২৮শে জানুয়ারি এ তিন দিনব্যাপী বাইক্কা বিলে অনুষ্ঠিত জলচর পাখি শুমারিতে এমন তথ্যই উঠে এসেছে। তবে আগের বছরের চেয়ে প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে এসব অথিতি পাখির আগমন।

প্রতি বছরই শীত প্রদান অঞ্চল থেকে উষ্ণতার খোঁজে ঝাঁকে ঝাঁকে আসে পরিযায়ি পাখির দল। শীতের তীব্র কুয়াশার চাদর গায়ে জড়ানো এসব পাখি মেতে ওঠে জলকেলিতে আর ছন্দময় ডানা ঝাঁপটানোয়। হাইল হাওরের বাইক্কাবিলে বিচিত্র রং আর নানা প্রজাতির এসব পাখি আসতে শুরু করে নভেম্বরের শুরুতে। আপন নীড়ে ফেরে গ্রীষ্মের শুরুতে। তবে প্রতি বছরই কিছু পাখি দেশিয় পাখিদের সাথে সখ্যতা গড়ে থেকে যায় এ বিলেই। আবার গাছে গাছেও মেলা বসে এসব পাখির। তখন কলতানে মুখর হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।

ডিসেম্বর-জানুয়ারী মাস জুড়ে উপজেলার হাইল হাওরের বাইক্কবিলের মাছের এই অভয়াশ্রমে কেবলই পাখির আনাগোনা-কলতান আর পানিতে ডানা ঝাঁপটানোর পাখির শব্দে থাকে মূখর। এসময় এঅঞ্চলে বেড়াতে আসা পাখিপ্রেমী দর্শকরা মুগ্ধ হয় পাখি দেখে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, সুদূর সাইবেরিয়া ও হিমালয় অঞ্চলসহ বিভিন্ন দেশ থেকে শীতের শুরুতে প্রতিবছর ঝাঁকে ঝাঁকে আসে নানা প্রজাতির পাখি। তাদের নিজেদের অস্থিত্বের প্রয়োজনে এ দেশের আতিথ্য নিতে ছুটে আসে এসব পরিযায়ী পাখিরা। এবার আসা অতিথি পাখির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে রাজসরালি, লেঞ্জা হাঁস, সাদা বক, কাস্তে চড়া, বালি হাঁস, পাতি তিলি সরালি হাঁস, পানকৌড়িসহ আরো অনেক প্রজাতির পাখি।

হাইল হাওরে স্থানীয় ক্রেল প্রজেক্টের কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, ক্রেলের প্রজেক্টের সহযোগিতায় গত ২৪-২৮ জানুয়ারি বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের পক্ষ থেকে তিনদিনব্যাপী বাইক্কা বিলে একটি বার্ড সার্ভে করা হয়। এতে প্রায় ৫ হাজারের উপরে পরিযায়ী পাখি দেখা যায়।

তিনি বলেন, ২০১৭ সালে জানুয়ারিতে পাখি শুমারিতে বাইক্কা বিলে ৪১ প্রজাতির ১০ হাজার ৭শ’ ১৩টি পাখি পাওয়া গিয়েছিলো। এর আগে ২০১৬ সালে পাওয়া গিয়েছিলো ৩১ প্রজাতির ৮ হাজার ৮শ’ ৩১টি পাখি। তবে এবার পাখি শুমারিতে গত বছরের তুলনায় কম পাখির দেখা পাওয়া গেছে।

পাখির সংখ্যা হ্রাসের কারণ বিষয়ে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রখ্যাত পাখি বিশেষজ্ঞ ইনাম আল হক বলেন, গত বছর সব বিলেই তার আগের বছরের চেয়ে বেশি পাখি পাওয়া গিয়েছিলো। এ বছর হাওরগুলোতে গত বছরের চেয়ে কমসংখ্যক পাখি আসে। প্রতিবছরই পাখির সংখ্যা উঠা-নামা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এ বছর জানুয়ারির শেষে বাইক্কা বিলে গিয়ে ‘পাতি তিলিহাঁস’ বেশি পেয়েছি। ফেব্রুয়ারিতে পাখি শুমারি করলে হয়তো অন্য একটি প্রজাতির হাঁস বেশি পাওয়া যেতো। পাতি-তিলিহাঁসগুলোকে জানুয়ারিতে যেভাবে বেশি সংখ্যায় দেখা যায়, তেমন ফেব্রুয়ারিতে দেখা যায় না। পানি কমলে-বাড়লে একেক হাঁসের সুবিধে হয়, আবার একেক হাঁসের অসুবিধেও হয়। সে অনুযায়ী ওরা অবস্থান করে কিংবা অন্যত্র সরে যায়।

শ্রীমঙ্গলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবাশশেরুল ইসলাম বলেন, অতিথি পাখির অবাধ বিচরণ ও শিকার বন্ধে প্রশাসন বরাবরই তৎপর রয়েছে। এছাড়া অতিথি পাখিদের যাতে শিকারীরা শিকার করতে না পারেন সেজন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা স্থানীয় প্রশাসনকে দেয়া আছে বলে জানালেন এই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    জকিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করলো মসজিদের ইমাম!
  •    ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে ‘ধর্ষণ’, আটক ডাক্তারকে জেলে প্রেরণ
  •    ক্রোয়াটদের কাঁদিয়ে ফ্রান্স দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন
  •    কাউন্সিলর প্রার্থী এবি এম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বলের গনসংযোগ
  •    তামাবিল দিয়ে তিন বাংলাদেশীকে ফেরত দিল বিএসএফ
  •    ‘হবিগঞ্জের মতো সিলেটেও বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হবেন’
  •    সিলেট এসেছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক শামীম
  •    ইনসাফ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করতে টেবিল ঘড়ির পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে
  •    জগন্নাথপুরে শাহজাহানকে অপহরনের পর নৃশংসভাবে হত্যা
  •    নগরীতে তীর শিলং খেলার অভিযোগে আটক ৭
  •    নগরীতে যুবলীগ-শিবিরের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া
  •    নগরীর রায়নগরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেপ্তার
  •    সোনারপাড়ায় কাউন্সিলর প্রার্থী স্বপ্নার গণসংযোগ
  •    রায়হুসেন-কলবাখানী এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী রুবেলের গণসংযোগ
  •    এবার বাস প্রতীকে ভোট চেয়ে মাঠে সেলিম পত্নী হেনা
  • সাম্প্রতিক পরিবেশ খবর

  •   কোম্পানীগঞ্জে ১৫ টি বোমা মেশিনের স্থাপনা ধ্বংস
  •   ছাতকে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, বাড়ছে দুর্ভোগ
  •   টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে সিলেটের নিম্নাঞ্চলে ফের বন্যার শঙ্কা
  •   ‘প্রশাসন নয়, হুদা ভাইয়ের নির্দেশে সুরমা নদী থেকে মাটি উত্তোলন করি’
  •   পুকুরের কাদা ও পানিতে আটকেছিল মায়া হরিণ
  •   রাজনগরে বানভাসিদের মাথা গোঁজার নতুন সংগ্রাম
  •   বড়লেখার সোনাই নদীর ৬ স্থানে ভাঙন, রাস্তা বিলীন
  •   ফেঞ্চুগঞ্জের দোকানে দোকানে পানি, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত
  •   জকিগঞ্জে কমছে পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ
  •   পাহাড়ি ঢলে সিলেটে ঈদ আনন্দ ম্লান
  •   সুনামগঞ্জ হাওরে বজ্র নিরোধক যন্ত্র স্থাপনের দাবি, ৪ বছরে প্রাণ গেল ৯১
  •   জৈন্তাপুরে নির্বিচারে চলছে পাহাড় কাটা, নিরব প্রশাসন!
  •   দেশের বিভিন্ন জেলায় আরও কালবৈশাখীর আশঙ্কা
  •   কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গনে ভিটেহীন শত পরিবার
  •   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযান : ১০টি বোমা মেশিন ধ্বংস