আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলার ১৪ বছর আজ

Published: 2018-05-21 04:20:40

NewsMirror24.com

ন্যায় বিচারে কলঙ্কমুক্তি

নুরুল হক শিপু : তৎকালীন ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলার ১৪ বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ। ২০০৪ সালের ২১ মে হজরত শাহজালাল (র.)-এর মাজার জিয়ারত করতে আসেন তৎকালীন নবনিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর। ওইদিন তাকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলা হয়েছিল। হামলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ তিনজন নিহত হয়েছিলেন। আহত হয়েছিলেন আনোয়ার চৌধুরী, সিলেটের তৎকালীন জেলা প্রশাসকসহ আরো ৭০ জন। তবে ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল ওই হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার রায় কার্যকরের মাধ্যমে ঘটনার কলঙ্কমুক্তি ঘটে। আওয়ামী লীগ সরকার এ ঘটনার বিচার কার্যকর করার মাধ্যমে দৃষ্টান্ত  স্থাপন করেছে।

২০১৭ মালের ১২ এপ্রিল বুধবার রাতে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার ও কাশিমপুর কারাগারে ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত হরকাতুল জিহাদের (হুজি) শীর্ষনেতা মুফতি হান্নান, তার সহযোগী শরীফ শাহেদুল বিপুল ও দেলওয়ার ওরফে রিপনকে ফাঁসি দেওয়া হয়। ওই রাত ১০টার তাদের ফাঁসির আদেশ কার্যকর করা হয়।

হামলা হয়েছিল যেভাবে : ২০০৪ সালের ২১ মে। দিনটি ছিলো শুক্রবার। ওই দিন সিলেটে আসেন তৎকালীন ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরী। সিলেট পৌঁছেই তিনি হজরত শাহজালাল (র.) মাজার জিয়ারত করতে যান। এ সময় তাকে স্বাগত জানান তৎকালীন সিলেট জেলা প্রশাসক আবুল হোসেন। এরপর মাজার জিয়ারত শেষে বেলা ১টায় শাহজালাল মাজার মসজিদে জুমআর নামাজ আদায় করেন তারা। ওইদিন আনোয়ার চৌধুরীর আগমন উপলক্ষ্যে শাহজালাল মাজার এলাকাসহ সিলেট নগরীতে ছিল নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা। কিন্তু ওই নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকা স্বত্বেও গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে।

নামাজ শেষে মুসল্লিদের ভিড়ের মধ্যে  বের হয়েছিলেন আনোয়ার চৌধুরী। এ সময় তার সাথে ছিলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক, সিলেট জেলা বারের সাবেক সভাপতিসহ অন্যান্যরা। এক পর্যায়ে আনোয়র চৌধুরীকে লক্ষ্য করে শক্তিশালী গ্রেনেড বিস্ফোরণ ঘটনো হয়। মাজার প্রাঙ্গণের মুসল্লিরা আতঙ্কে দিগবিদিঙ্ দৌঁড়াদৌঁড়ি ও চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন। কালো ধোয়ায় অন্ধকার হয়ে যায় পুরো মাজার এলাকা।

এ ঘটনায় নিহত হন পুলিশের এক সদস্যসহ তিন জন। আহত হয়েছিলেন প্রায় ৭০ জন। সেদিনের গ্রেনেড হামলায় যারা নিহত হয়েছিলেন, তারা হচ্ছেন, পুলিশ পরিদর্শক কামাল উদ্দিন, কলেজছাত্র রুবেল আহমদ এবং দিনমজুর হাবিল মিয়া। এছাড়া সিলেটের তৎকালীন জেলা প্রশাসক আবুল হোসেন, সিলেট জেলা বারের সাবেক সভাপতি আবদুল হাই খান, সাংবাদিক মুহিবুর রহমান ও সুরত আলীসহ প্রায় ৭০ জন আহত হয়েছিলেন।

সেদিন আনোয়ার চৌধুরীই ছিলেন হামলার মূল টার্গেট। তবে ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান আনোয়ার চৌধুরী। তার পায়ে স্পি­ন্টারের আঘাত লেগেছিল। সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয় তাকে।

২০০৪ সালে এ ঘটনা ঘটলেও দীর্ঘ ১৩ বছর পর চাঞ্চল্যকর সেই হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা নিষ্পত্তি হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ২০০৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর মুফতি হান্নান, শরীফ শাহেদুল ওরফে বিপুল, দেলওয়ার ওরফে রিপনকে মৃত্যুদন্ড এবং মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ও আবু জান্দালকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেন সিলেট দ্রুত বিচার আদালত।

রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন মৃত্যুদন্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামিরা। তবে পূর্বোক্ত রায় বহাল রাখেন হাইকোর্ট। পরে আসামিদের আপিল খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। গত বছরের ১৭ জানুয়ারি পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি আসামিরা রিভিউ আবেদন করেন। ১৯ মার্চ সে আবেদন খারিজ হয়। পরে গত ২১ মার্চ রিভিউ খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। ২২ মার্চ হুজি নেতা মুফতি হান্নান, শরীফ শাহেদুল আলম ওরফে বিপুল এবং দেলওয়ার ওরফে রিপনের রিভিউ আবেদন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে এসে পৌঁছায়। সিলেট কারাগারে থাকা দেলওয়ার ওরফে রিপনকে এ রায় শুনানো হয়। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় এ তিন জঙ্গির মৃত্যু পরোয়ানা বিচারিক আদালত থেকে কারাগারে পৌঁছায়। এরপর, গত ২৩ মার্চ নিজের পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সিলেট কারাগারে বন্দী থাকা দেলওয়ার ওরফে রিপন। পরে ২৭ মার্চ তিনি লিখিতভাবে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, তিন জঙ্গির প্রাণভিক্ষার আবেদন রাষ্ট্রপতি নাকচ করে দিয়েছেন। কারাবিধি অনুযায়ী তাদের কারাদন্ড কার্যকরের প্রস্তুতি চলছে। পরে রিপনের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ হওয়ার চিঠি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে এসে পৌঁছায়। এরপর ফাঁসি কার্যকর প্রক্রিয়া শুরু করে কারা কর্তৃপক্ষ।

অবশেষে ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল বুধবার রাত ১০টার সময় সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটে। এক সাথে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার ও কাশিমপুর কারাগারে নিষিদ্ধ ঘোষিত হরকাতুল জিহাদের (হুজি) শীর্ষনেতা মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ‘মুফতি’ আব্দুল হান্নান ও জঙ্গি শরীফ শাহেদুল আলম বিপুল ও রিপনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়। ওই মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত মফিজুর ও আবু জান্দাল আপিল করেননি। এর ফলে তাদের ওই সাজাই বহাল থাকে।

 

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    সিলেটে-পুলিশ ছাত্রদল ধাওয়া পাল্টাধাওয়া, আটক ২০
  •    ৭০ বছরে পদার্পণ করলো আওয়ামী লীগ
  •    সিসিক নির্বাচন : মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে পারেন আরিফুল হক চৌধুরী!
  •    পরিচ্ছন্ন ও অপরাধমুক্ত নগরী গড়তে চাই : ডা. মোয়াজ্জেম
  •    সিলেট মহানগর শিবিরের ঈদ পুনর্মিলনী
  •    সিসিক নির্বাচন : ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাবেদের সমর্থনে সভা
  •    সুনামগঞ্জের জাহাঙ্গীর নগরে সড়ক দূর্ঘটনায় বৃদ্ধার মৃত্যু
  •    ওসমানীনগরে বন্যার্তদের পাশে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ
  •    কোম্পানীগঞ্জে দাওয়াত খেতে এসে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
  •    চুনারুঘাটে যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
  •    শিবগঞ্জে স্কুলছাত্র হত্যায় গ্রেপ্তার ৭
  •    বার কাউন্সিলের এডভোকেটশীপ লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতি বিষয়ক কর্মশালা
  •    বর্ষা মৌসুমে প্রাথমিক বিদ্যালয় যাওয়া থেকে বঞ্চিত হাওর পাড়ের শিক্ষার্থীরা
  •    কানাইঘাটে ৩’শ বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার ৩
  •    জগন্নাথপুরে কিশোর নির্যাতনের অভিযোগ, মামলায় ফাসানো হলো ১১ জনকে
  • সাম্প্রতিক বিশেষ প্রতিবেদন খবর

  •   ওয়ার্ক অর্ডার ছাড়াই কোটি টাকার প্রকল্পের কাজ উদ্বোধন করলেন মেয়র আরিফ
  •   কোম্পানীগঞ্জে হাত বাড়ালেই মিলছে ইয়াবা-ফেন্সিডিল
  •   সিসিক নির্বাচন ৩০ জুলাই : দুই দলে মনোনয়ন প্রত্যাশী একাধিক
  •   সিলেটে জোড়া খুন : গ্রেপ্তার হয়নি মূল অভিযুক্তরা, উদ্ধার নেই আগ্নেয়াস্ত্র
  •   ওসমানীর সাবেক উপ-পরিচালক ডা. ছালামসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে দেড় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
  •   কানিশাইলে সুরমা নদীর খনন কাজ : পাউবো-অযোগ্য ঠিকাদার সিন্ডিকেট
  •   আজ তারাপুর চা-বাগান গণহত্যা দিবস : ৩৯ শহীদের স্বীকৃতি মেলেনি এখনো
  •   ওসমানীনগর নয়া সাবরেজিস্ট্রারের আয়েশী চেয়ার!
  •   রাগীব আলীর ২ কোটি ৬১ লাখ টাকার কর ফাঁকি
  •   কোম্পানীগঞ্জে বিধবাকে ধর্ষণের চেষ্টা, অপমানে আত্মহত্যা
  •   মিরাবাজারে ‘ডাবল মার্ডার’ : কাজের মেয়েকে খুঁজছে পুলিশ
  •   লোভাছড়া পাথর কোয়ারি : দুই শতাধিক অবৈধ গর্তের নিয়ন্ত্রক ৪৬ জন
  •   ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে চার্জশিট থেকে বাদ লিয়াকত আলী!
  •   শাবির মহাপরিকল্পনা কাগজে আছে, বাস্তবে নেই!
  •   সিলেটে প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে ছাত্রলীগের মহড়া : এখনো ধরা পড়েনি কেউ!