এবার মশা নিধনে ৪টি টিম নিয়ে অ্যাকশনে সিসিক

Published: 2017-12-06 03:45:22

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার মশার বিরুদ্ধে অ্যাকশনে নামছে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)। চারটি টিম নিয়ে শুরু হচ্ছে তাদের এই মশা নিধন অভিযান। তবে আপাতত সীমিত পরিসরে এই মশা নিধন অভিযান চলবে। চলতি মাসের শেষের দিকে পুরো নগরীতে শুরু হবে এই অভিযান। শীত মৌসুমের শুরুতেই বেড়ে যায় মশার উৎপাত। এবারও শীত আসতে না আসতেই মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সিলেট সিটি করপোরেশন এলাকার বাসিন্দারা। নগরীর প্রত্যেক পাড়া-মহল¬ায় মশার তীব্র উৎপাতে মানুষের নাভিশ্বাস ওঠেছে। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর থেকে মশার উৎপাত বেড়ে যায় ভয়ানক আকারে।

নগরীর পূর্ব জিন্দাবাজার এলাকার বাসিন্দা আতিকুজ্জামান আতিক বলেন, ‘মশার জ্বালায় ঘরে থাকাই যেন দায়! কয়েল, স্প্রে দিয়েও মশার উৎপাত ঠেকানো যাচ্ছে না।’ এরকম অবস্থায় সিলেট সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ছিল অসহায়। প্রয়োজনীয় পরিমাণ ঔষধ না থাকায় তারা মশা নিধন অভিযান শুরু করতে পারছিল না। পুরো নগরীতে মশার উৎপাত ঠেকাতে যেখানে প্রয়োজন তিন হাজার লিটার ঔষধ,সেখানে করপোরেশনের কাছে ছিল মাত্র ৪০ লিটার!

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দরপত্রের বাইরে জরুরী ভিত্তিতে ৪ লাখ টাকার ঔষধ কেনার সিদ্ধান্ত হয় গত সপ্তাহে। সেই ঔষধ কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এক হাজার লিটার ঔষধ কিনেছে সিটি করপোরেশন। এই ঔষধ নিয়ে মশা নিধন মঙ্গলবার থেকে মশা নিধন অভিযান শুরু করছে সিটি করপোরেশন।

সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, ‘আমরা চাল লাখ টাকায় এক হাজার লিটার ঔষধ কিনেছি। এই ঔষধ নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার থেকে মশা নিধন অভিযান শুরু হচ্ছে। চারটি টিম এ অভিযানে থাকবে। আপাতত নগরীর ছড়াগুলোতে এই ঔষধ ছিটানো হবে।’

সিসিক সূত্র জানায়, পুরো নগরীতে ছিটানোর জন্য আরো প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ঔষধ কেনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। চলতি মাসের শেষের দিকে এ ঔষধ কেনার প্রক্রিয়া শেষে নগরীতে শুরু হবে ছিটানো।

সিসিক কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, ‘আরো প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ঔষধ কেনার জন্য টেন্ডার আহবান করা হয়েছে। এ ঔষধ কেনা হয়ে গেলে এ মাসের শেষের দিকে পুরো নগরীতে মশা নিধন অভিযান শুরু হবে।’

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    জামালগঞ্জে ইজারাদারের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ
  •    সাংবাদিক লুৎফুরের সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল
  •    আফগানিস্তান সিরিজের দলে বালাগঞ্জের রাহী
  •    হবিগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষ : শিশুসহ আহত অর্ধশতাধিক, আটক ১৩
  •    মাধবপুরে শিশু খুন
  •    চুনারুঘাটে গাঁজাসহ গ্রেপ্তার ২
  •    নগরীতে নকল ঘি’র কারখানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
  •    সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ধান সংগ্রহ শুরু হয়নি এখনও
  •    নবীগঞ্জে দায়সারা কাজ, বাঁধের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
  •    মহানবী (সা.)-কে কটুক্তি, মসজিদে তালা দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন
  •    ছাতকে ফাইল বন্দি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ
  •    এবার ফুলকলিকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা
  •    কন্ঠশিল্পী হিমাংশু বিশ্বাস অসুস্থ, উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ
  •    আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলার ১৪ বছর আজ
  •    ছাত্রদল নেতা সাজ্জাদের কারামুক্তি, জেলগেইটে সংবর্ধনা
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   জামালগঞ্জে ইজারাদারের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ
  •   হবিগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষ : শিশুসহ আহত অর্ধশতাধিক, আটক ১৩
  •   মাধবপুরে শিশু খুন
  •   চুনারুঘাটে গাঁজাসহ গ্রেপ্তার ২
  •   নগরীতে নকল ঘি’র কারখানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
  •   সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ধান সংগ্রহ শুরু হয়নি এখনও
  •   নবীগঞ্জে দায়সারা কাজ, বাঁধের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
  •   মহানবী (সা.)-কে কটুক্তি, মসজিদে তালা দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন
  •   ছাতকে ফাইল বন্দি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ
  •   এবার ফুলকলিকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা
  •   কন্ঠশিল্পী হিমাংশু বিশ্বাস অসুস্থ, উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ
  •   ছাত্রদল নেতা সাজ্জাদের কারামুক্তি, জেলগেইটে সংবর্ধনা
  •   সিলেট সরকারি কলেজের সামন থেকে ইয়াবা ও গাঁজাসহ আটক ২
  •   বালাগঞ্জে এবারও রমজানে পণ্যের দাম চড়া
  •   নগরীতে দুই ঘন্টার অভিযানে ৩২ মাদকসেবীকে কারাদন্ড