শেখ রাসেলের বুক চিরে সিলেটে আবারো বাণিজ্য মেলা!

Published: 2019-01-26 15:58:51    Updated : 2019-01-27 02:12:18

বিশেষ প্রতিবেদক : মাস যেতে না যেতেই সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৯ আয়োজন করা হচ্ছে। গত শুক্রবার (২৫ জানুয়ারী) বিকেলে নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে এই বাণিজ্য মেলার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। গত এক মাস হলো একই স্থানে একটি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিকে সিলেটে ঘণ ঘণ মেলার কারণে বিপাকে পরছেন ব্যবসায়ীরা।
নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মূলত জেলা প্রশাসনের নামীয় রেকর্ডীয় ভূমি। এই ভূমি নিয়ে উচ্চআদালতে একটি মামলা বিচারাধীন। কিন্তু সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ চৌধুরী তিনি বিগত ৫ বছর থেকে তথাকথিত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা এবং পশুর হাট হিসেবে ভাড়া দিয়ে আসছেন। অথচ জেলা প্রশাসন কোন ব্যবস্থা না নিয়ে একটি বেআইনী কার্যক্রমকে কেনো উৎসাহিত করছেন তা সাধারণ মানুষের বোধগম্য নয়।

খেলার মাঠ শুধু খেলা করার জন্য ব্যবহার করতে হবে। এই ভূমিটি বিগত জরিপে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে জেলা প্রশাসকের নামে এক নম্বর খতিয়ানে রের্কডভূক্ত হয় অথচ সরকারের এই ভূমি অবৈধভাবে ব্যবহার করছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। দেড় মাস হল একই স্থানে অনুষ্ঠিত হয়েছে সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির আয়োজনে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৮। এই সময়ের উদ্বোধনী অনুষ্টানে সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ চৌধুরী গণমাধ্যম কর্মীদের বলে ছিলেন এই মাঠে আর কোনো বাণিজ্যিক কার্যক্রম চলতে দেয়া হবে না। প্রায় একমাস যেতে না যেতেই আবারো একই স্থানে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ইন্ড্রাস্ট্রির সদস্য এবং মেলার সমন্বয়কারী এম এ মঈন খান বাবলু মেলার আয়োজন করছেন।

অতীতে এই ভূমিতে ১৭ লাখ টাকার বিনিময়ে সদর উপজেলা পরিষদ পশুর হাটের জন্য ভাড়া দেয়া হয়েছিলো।

একটি সূত্র জানিয়েছে- সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির আয়োজনে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৮‘র জন্য এই মাঠ ভাড়া নেয়া হয়েছিলো ১৮ লাখ টাকা দিয়ে।

খেলার মাঠকে মেলার স্থান হিসেবে ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে একটি রিট আবেদন করেছিলেন নগরীর শাহী ঈদগাহর বাসিন্দা নাজির আহমেদ চৌধুরীর ছেলে মনজু জামান চৌধুরী। পরে আদালত মাঠটিকে স্থানীয় শিশু-কিশোরদের জন্য খেলার মাঠ হিসেবে রাখার জন্যও নির্দেশনা প্রদান করেন।

২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর তিনি একটি রিট আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ রুল জারি করেন।

একটি সূত্র জানিয়েছে, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে সরকারের খাস জমিতে সিলেট আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৯ আয়োজন করেছে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ইন্ড্রাস্ট্রির সদস্য এবং মেলার সমন্বয়কারী এম এ মঈন খান বাবলু।
 
এই সদর উপজেলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের মাঠের খোলা জায়গায় বিভিন্ন এলাকার এবং স্থানীয় শিশু-কিশোর খেলাধুলা করতো।

মেলার আয়োজকরা জানান, তারা বাণিজ্য মন্ত্রণালয় অনুমতি পেয়েছেন ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদও এবিষয়ে অবগত রয়েছেন। তারা সবার অনুমতি নিয়েই মেলা করছেন।

আইন অনুযায়ী খেলার মাঠে খেলা ছাড়া অন্য কোন কাজে ব্যবহার কিংবা ভাড়া দেওয়া দন্ডনীয় অপরাধ। কিন্তু এই আইন লঙ্ঘন করেই খেলার মাঠ (বর্তমানে নির্মাণাধীন শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম) মেলা জন্য ভাড়া দিচ্ছেন সদর উপজেলা প্রশাসন।

খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান, উদ্যান ও প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন-২০০০ এর ৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী, খেলার মাঠ অন্য কোনোভাবে ব্যবহার বা অনুরূপ ব্যবহারের জন্য ভাড়া, ইজারা বা অন্য কোনোভাবে হস্তান্তর করা যাবে না। এই আইন লঙ্ঘনে অনধিক পাঁচ বছরের কারাদন্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় সাজার বিধান রয়েছে।

এই মেলার সমন্বয়কারীর দায়িত্বে এম.এ.মইন থান বাবলু। বাবলুর প্রতারণার শিকার হয়েছেন সিলেটের সাধারণ মানুষ কিন্তু এই প্রতারণার কথা জানেন না মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি। অতীতে তৃণমূল নারী উদ্যোক্তার কাঁধে ভর করে অসহায়কে সাহার্য্য, দুরারোগ্য রোগীদের চিকিতসার সাহায্য, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে চিকিৎসা’ এসবের নামে লাক্কাতুরা গলফ ক্লাব সংলগ্ন মাঠে তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির (গ্রাসরুটস) উদ্যোগে মাসব্যাপী মেলা আয়োজন করেন বাবলু।

এই মেলার লটারিতে মোটরসাইকেল বিজয়ী অনেকেই তাদের কাগজপত্র পাননি। এমন কি এই মেলায় রুবেল অটো নামক যে শোরুম থেকে বিজয়ীদের মোটরসাইকেল দেয়া হয়েছিলো সেই শোরুমের মালিককে তার কোম্পানীর পাওনা টাকাও পরিশোধ করেননি বাবলু। অভিযোগ রয়েছে যাদের সহযোগীতার উদ্দেশ্যে মেলার আয়োজন করা হয় তারা বাবলুর এই সকল মেলা থেকে কোনো সহযোগীতা পাননি। আর পেলেও তা শুধু নামমাত্র। মেলার পুরো অর্থ ভাগাভাগি করে নেওয়া হয় ক্ষমতাসীন দলের নেতা ও বাবুলের মধ্যে। এদিকে সিলেটে ঘন ঘন মেলা আয়োজন নিয়ে বিপাকে রয়েছেন ব্যবসায়ীরাও।

চলতি জানুয়ারি মাসে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে একটি ফুটবল টুর্ণামেন্ট হবে জানিয়ে ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ। কিন্তু এখন খেলার বদলে মেলার আয়োজন করা হচ্ছে।

আগেও সিলেটে বিভিন্ন নামে একাধিক মেলার আয়োজন করেন মঈন খান বাবলু। প্রশাসন থেকে সুবিধা পাওয়ার জন্য ক্ষমতাসীন নেতাদের সহযোগীতা নেন। বিনিময়ে নেতারদের দেওয়া হয় মেলা থেকে অর্জিত অর্থের ভাগ। এর আগে বিভাগীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ফটক সংলগ্ন এলাকায় মাসব্যাপী ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্প মেলার আয়োজন করা হয়। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে ছিল বাবলুর প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ বেনারসি মসলিন অ্যান্ড জামদানি সোসাইটি। এই সময় মেলায় লটারী বাণিজ্য করে কোটি কোটি টাকা আয় করলেও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে দেওয়া হয় নামে মাত্র ৫ লাখ টাকা। একইভাবে গত ঈদুল ফিতরের সময় নগরের টুকেরবাজার তেমুখী সংলগ্ন মাঠে তাঁত বস্ত্র শিল্প মেলার আয়োজন করেন বাবলু। মাস ব্যাপী শুরু এই মেলা চলে আড়াই মাস। এই মেলার মূল উদ্দেশ্য ছিলো পবিত্র ঈদুল আজহার সময় একই স্থানে মেলার বদলে অবৈধ গরুর হাট করার । পরে সেখানে বসানো হয় অবৈধ গরুর হাট।

এছাড়াও গত বছরের ৬ জানুয়ারি সদর উপজেলা মাঠে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে আন্তর্জাতিক বানিজ্য মেলার আয়োজন করা হয়। এই মেলায়ও ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে ছিলেন বাবলু। এই মেলায় নামে আন্তর্জাতিক হলেও ফুটপাতের পণ্য তুলে ব্যাপক সমালোচিত হন তিনি। পাশাপাশি লটারির টিকিট ও মেলাঙ্গনে প্রবেশ টিকিট নগর থেকে গ্রামে রিকশা ও গাড়ি যোগে বিক্রি করা হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির একজন সদস্য বলেন, আর্থিক সাহায্যের খাত দেখিয়ে সিলেটের মানুষের সরলতার সুযোগ নিয়ে মেলার আয়োজন করা হয়। কিন্তু যে উদ্দেশ্যে মেলার আয়োজন করা হয় ওই খাতকে বঞ্চিত রাখেন উদ্যোক্তারা।

এ বিষয়ে মঈন খান বাবলু বলেন, বিভিন্ন সময় মেলার আয়োজন করলেও সহযোগীতার জন্য করে থাকি। আগে তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা মেলা থেকে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে ৫লাখ টাকা দিয়েছি। রুবেল অটোর সাথে কিছু টাকা লেনদেনের কথাও তিনি স্বীকার করেন।

রুবেল অটো শোরুমের মালিক রুবেল আহমদ  বলেন, লাক্কাতুরা গলফ ক্লাব সংলগ্ন মাঠে তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির (গ্রাসরুটস) উদ্যোগে মাসব্যাপী মেলায় আমার শোরুমের মোটরসাইকেল দেয়া হয়েছিলো। এখনও এই টাকা আমি পাইনি। টাকা না পাওয়ায় আমি মোটরসাইকেলের কাগজ বাবলুর কাছে সমজিয়ে দেইনি।
সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি হাসিন আহমদের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি।
 
এই মাঠ সদর উপজেলার মাঠ কি না এমন প্রশ্নের জবাবে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, এই মাঠ ডিসি খতিয়ানের, সদর উপজেলার মাঠ বলেই চলছে। দীর্ঘদিন থেকেই এই মাঠ নিয়ে একটি মামলা চলছে, আর এই মামলা পরিচালনা করছে সদর উপজেলা অফিস। এবার কত টাকার বিনিময়ে এই মাঠ ভাড়া দেয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাব তিনি এড়িয়ে যান।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেন, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মূলত জেলা প্রশাসনের নামীয় রেকর্ডীয় ভূমি। এই ভূমিতে নগরীর কয়েকটি এলাকার ছেলেরা খেলাধূলা করত। এখন বাণিজ্য মেলার কারণে এই মাঠে স্থানীয় খেলোয়াররা খেলাধূলা করতে পারছে না। আমার কষ্ট হয় যখন শুনি এই মাঠে পশুর হাট, বাণিজ্য মেলার আয়োজন করছে। এই মাঠে যখন পশুর হাট, বাণিজ্য মেলার জন্য মাটির উপর ইট দেয়া হয় আবার মাটির মাঝে গর্ত করা হয়। আমার কাছে তখন মনে হয় ওরা শেখ রাসেলের বুক চিরে এসব আয়োজন করছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ইন্ড্রাস্ট্রির সদস্য এবং মেলার সমন্বয়কারী এম এ মঈন খান বাবলু বলেন, আমরা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়েই মেলার আয়োজন করছি। তিনি জানান, রুবেলের সাথে তার ব্যবসায়ী সম্পর্ক তিনি তা পরিশোধ করবেন।


গত শুক্রবার বিকালে নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন অনুষ্টান ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুম মুনিরা, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজ এর সভাপতি হাসিম আহমদ, ১ম সহ-সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল, সহ-সভাপতি হুরায়রা ইফতার হোসেন, পরিচালক মাহবুবুর রহমান, মামুদ বকস রাজন, মোহাম্মীর হোসেন চৌধুরী, মাওলানা খায়রুল হোসেন, প্রাক্তন পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, খলিলুর রহমান মাছুম, অনুপ কুমার দেব, সদস্য মো.মঈনুল ইসলাম মঈন, মো. জয়নাল আহমদ রানা, মো. ওয়ালী উল্লাহ, মো. জহির হোসেন, শেখর দে, মো. মামুন হোসেন, অরুপ রায়, সচিব মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, এসএমপি’র শাহপরাণ (রহ.) থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. জুয়েল হোসেন ও সিলেট জেলা ব্যবসায়ি সমিতির পৃষ্টপোষক নজরুল ইসলাম চুনু, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার।

অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক আব্দুল মালিক জাকা, শাহী ঈদগাহ এলাকার গুলজার আহমদ, ফজলুল হক, ফারুক আহমদ, নজমুল ইসলাম এহিয়া, ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান পাপ্পু, রায়হান আহমদ, আনোয়ার হোসেন রাজু, মাহিন আহমদ, কুটন মিয়া, কছির ভূইয়া, কিবরিয়া আহমদ, সাদেক আহমদ, কাইয়ুম আহমদ, বাপ্পি, পাপলু, মোর্শেদ আহমদ, শামসুর রহমান হিরা, মোস্তাক আহমদ, শাহিন।


শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    সিকৃবি’র ছাত্র ওয়াসিম হত্যায় ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা
  •    সিলেটে আলো ও অন্ধকারে একাত্তরের গত্যাহত্যার স্মরণ
  •    শিবগঞ্জে ডাকাত সন্দেহে জনতার প্রতিরোধের মুখে পুলিশ
  •    গোলাপগঞ্জে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে জায়গা দখলের অভিযোগ
  •    জাফলংয়ে ৬শ পিস ইসাবাসহ মহিলা আটক
  •    শাহপরাণে ঘরে আটকে রেখে স্ত্রীকে নির্যাতন, স্বামী আটক
  •    টিলাগড় কল্যাণপুরে ভাঙচুরকৃত শিবমন্দির পরিদর্শন
  •    পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা ও বিনোদন অপরিহার্য
  •    ধুমপান বর্জন করলে ৩৩ভাগ ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করা সম্ভব
  •    আজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস
  •    নাসরিন আহমদের রোগ মুক্তি কামনায় জাফলংয়ে দোয়া মাহফিল
  •    বঙ্গবন্ধু ছাত্র ফাউন্ডেশনের ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন
  •    মাহা-সিলেট জেলা প্রেসক্লাব ক্রীড়া প্রতিযোগিতার ৩য় দিনের বিজয়ী যারা
  •    আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে পল্লীসমাজের মানববন্ধন
  •    আতিয়া মহল ট্র্যাজেডি : বাবা-মেয়ের এক লোমহর্ষক বর্ণনা
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   সিকৃবি’র ছাত্র ওয়াসিম হত্যায় ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা
  •   সিলেটে আলো ও অন্ধকারে একাত্তরের গত্যাহত্যার স্মরণ
  •   শিবগঞ্জে ডাকাত সন্দেহে জনতার প্রতিরোধের মুখে পুলিশ
  •   গোলাপগঞ্জে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে জায়গা দখলের অভিযোগ
  •   জাফলংয়ে ৬শ পিস ইসাবাসহ মহিলা আটক
  •   শাহপরাণে ঘরে আটকে রেখে স্ত্রীকে নির্যাতন, স্বামী আটক
  •   নাসরিন আহমদের রোগ মুক্তি কামনায় জাফলংয়ে দোয়া মাহফিল
  •   আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে পল্লীসমাজের মানববন্ধন
  •   আতিয়া মহল ট্র্যাজেডি : বাবা-মেয়ের এক লোমহর্ষক বর্ণনা
  •   কানাইঘাট কল্যাণ সংস্থার পুরস্কার বিতরণ ও সংবর্ধনা
  •   একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির আলোর মিছিল
  •   এপার বাংলা, ওপার বাংলা নৃত্য উৎসব সম্পন্ন
  •   চুনারুঘাট ঘনশ্যামপুর জামে মসজিদে মাইক প্রদান
  •   বিশ্বনাথে মায়ের হাতে শিশুকন্যা খুন!
  •   মুক্তিযোদ্ধের সময় অনন্য ভূমিকায় আব্দুর রহমান আজাদ
  •