তিনি দুই দেশের দু’জন প্রেসিডেন্টের স্ত্রী!

Published: 2017-09-21 20:37:21

নিউজ মিরর ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে ম্যাডাম জিসেলি নামে পরিচিত ৫০ বছর বয়সী এক নারী দাবি করেছেন তিনি দুই দেশের দু’জন প্রেসিডেন্টের স্ত্রী। কিন্তু গোপনে তাদের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে এবং হাই-প্রোফাইল হওয়ায় প্রেসিডেন্ট স্বামীদের ইচ্ছায় তিনি বিয়ের তথ্য চাপা রেখেছেন।

মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকায় ম্যাডাম জিসেলির দীর্ঘ সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবর মতে , তিনি ‘ম্যাডাম জিসেলি’ নামে পরিচিত। আরও অনেক নাম রয়েছে তার, যেগুলো তিনি বিভিন্ন সময় ব্যবহার করেছেন। বহু দেশে তার বাড়ি ও সম্পত্তি রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা ও মেরিল্যান্ডেও তার আলিশান বাড়ি আছে।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবর অনুযায়ী, জিসেলি দাবি করেন, তিনি দু’জন প্রেসিডেন্টের স্ত্রী। কিন্তু তাদের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে গোপনে। হাই-প্রোফাইল হওয়ায় প্রেসিডেন্ট স্বামীদের ইচ্ছায় তিনি বিয়ের তথ্য চাপা রেখেছেন।

জিসেলি দাবি করেন, মিসরের ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি তার স্বামী! তবে এ খবর কেউ জানেন না। সিসির কার্যালয়ে যোগাযোগ করেও নাকি কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। ফলে রহস্য আরও ঘনীভূত হয়েছে। তবে এখানেই শেষ নয়!

জিসেলির দাবি, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সিসির ফোনালাপ করিয়ে দিয়েছেন তিনিই। ট্রাম্পের সঙ্গে সিসির সুসম্পর্কের কারণও নাকি তিনি!

ম্যাডাম জিসেলি দৃঢ় গলায় দাবি করেন, ভেনিজুয়েলার প্রয়াত প্রেসিডেন্ট হুগো শ্যাভেজ তার স্বামী ছিলেন! কিন্তু এর কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি তিনি। ভেনিজুয়েলার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসা-বাণিজ্যেও নাকি তার হাত রয়েছে। ঘানার সাবেক প্রেসিডেন্ট জন কুফুয়োরের সঙ্গে তার নাকি ঘনিষ্ঠতা ছিল। এ নিয়ে ঘানার বিভিন্ন গণমাধ্যম ও ব্লগে লেখালেখি হয়েছিল।

জিসেলি দাবি করেন, তার জন্ম লেবাননে কিন্তু বেড়ে উঠেছেন বিভিন্ন দেশে। যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন, কলোম্বিয়া, ভেনিজুয়েলা, কিউবায় তার অবাধ চলাচল। কলোম্বিয়ার সামরিক বাহিনীকে অস্ত্র দিতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চুক্তি বাতিল হয়।

আরও চড়কদার বিষয় হল, তার বিভিন্ন দাবি নিয়ে ধোঁয়াশার মধ্যে কিছু সত্যতার আভা দেখা গেলেও এমন এক দাবি তিনি করেছেন, যা আকাশ থেকে পড়ার মতো। তার দাবি, ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রয়েছে! শুধু তাই নয়, হোয়াইট হাউসে তার বসারও ব্যবস্থা আছে!

কিন্তু হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, ম্যাডাম জিসেলি নামে হোয়াইট হাউসে কেউ কাজ করেন না। জিসেলির অর্থ-সম্পদ নিয়ে তার প্রতিবেশীদের মধ্যে নানা গুঞ্জন রয়েছে। ব্যক্তিগত জেট বিমানে চলাচল করেন তিনি।

জিসেলির বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া শুরু করেছে মেরিল্যান্ড অ্যাটর্নির কার্যালয়। উঠে আসছে অনেক তথ্য। কতটা সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে- তা নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •    জকিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করলো মসজিদের ইমাম!
  •    ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে ‘ধর্ষণ’, আটক ডাক্তারকে জেলে প্রেরণ
  •    ক্রোয়াটদের কাঁদিয়ে ফ্রান্স দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন
  •    কাউন্সিলর প্রার্থী এবি এম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বলের গনসংযোগ
  •    তামাবিল দিয়ে তিন বাংলাদেশীকে ফেরত দিল বিএসএফ
  •    ‘হবিগঞ্জের মতো সিলেটেও বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হবেন’
  •    সিলেট এসেছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক শামীম
  •    ইনসাফ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করতে টেবিল ঘড়ির পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে
  •    জগন্নাথপুরে শাহজাহানকে অপহরনের পর নৃশংসভাবে হত্যা
  •    নগরীতে তীর শিলং খেলার অভিযোগে আটক ৭
  •    নগরীতে যুবলীগ-শিবিরের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া
  •    নগরীর রায়নগরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেপ্তার
  •    সোনারপাড়ায় কাউন্সিলর প্রার্থী স্বপ্নার গণসংযোগ
  •    রায়হুসেন-কলবাখানী এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী রুবেলের গণসংযোগ
  •    এবার বাস প্রতীকে ভোট চেয়ে মাঠে সেলিম পত্নী হেনা